টেকনাফে সাংবাদিক হামলা: জাতীয় প্রেসক্লাবে উপকূলীয় সাংবাদিক ফোরামের মানববন্ধন

hobaib-pic-19.05.16কক্সবাজারের টেকনাফে ইয়াবা ব্যবসাীদের নেতৃত্বে  সাংবাাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবে মানববন্ধন করেছে কক্সবাজার জেলা উপকূলীয় সাংবাদিক ফোরাম।

বৃহস্পতিবার  দুপুর ১২টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে ও প্রতিবাদ সমাবেশে জাতীয় পর্যায়ের সাংবাদিকরা অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের উপর আক্রমণের প্রতিবাদ জানান এবং অবিলম্বে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তার এবং কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় কক্সবাজার জেলা উপকূলীয় সাংবাদিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক  এএম হোবাইব সজীবের সভাপতিত্বে সদস্য রকিয়ত উল্লাহ ছোটনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নেতা জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য সাখাওয়াত ইবনে মইন চৌধুরী, মোঃ বোরহান উদ্দিন, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, খন্দকার মাসুদুজ্জামান, উপস্থাপক ও সাংবাদিক মহসিন আহমদ স্বপন, আজাদ, খালেক, ইসলাম প্রমুখ।

বক্তরা বলেন, সাংবাদিকদের উপর হামলায় পুলিশ প্রশাসনের ইন্ধন রয়েছে। তা না হলে ঘটনার দীর্ঘদিন পার হয়ে গেলেও সাংবাদিকদের লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধার হয়নি ও জড়িত ৩ জনকে গ্রেফতার করলেও  ইয়াবা গডফাদার ভূট্টোকে গ্রেফতারে পুলিশের পক্ষ থেকে কোন ধরণের তৎপরতা দেখা যাচ্ছে না। দ্রুত ইয়াবা সম্রাটদের গ্রেপ্তার করা না হলে বৃহত্তর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেন সাংবাদিক নেতারা।
জাতীয় সাংবাদিক নেতা জাহাঙ্গীর আলম প্রধান তাঁর বক্তৃতায় বলেন, দেশের সকল সাংবাদিক সমাজকে এক হয়ে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় দুর্বার আন্দোলন গড়েতোলা জরুরি।

তিনি বলেন, সাংবাদিকদের উপর হামলাকারীদের ছাড় দেওয়া যাবে না। যে কোন উপায় মোকাবেলা করে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলতে হবে। নিমূল করতে হবে ইয়াবাবা গডফাদারদের।

তিনি  কক্সবাজার উপকূলীয় সাংবাদিক ফোরামের আয়োজনে জাতীয় প্রেসক্লাবে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের উদ্যোগ নেওয়ায় কক্সবাজার উপকূলীয় সাংবাদিক ফোরামের ভূঁইসি প্রশংসা করেন।

প্রসঙ্গত, গত ১৩মে  টেকনাফের সদর ইউনিয়নের নাাজিরপাড়ায়  পেশাগত দায়িত্বপালনকালে সময় টিভির জেলা প্রতিনিধি সুজাউদ্দিন রুবেল, ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির তৌফিকুল ইসলাম লিপু সহ ৫জন সাংবাদিকের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে ইয়াবা সম্রাট নূরুল হক ভুট্টো বাহিনী। সাংবাদিকদের এলোপাতাড়ি কুপিয়ে নির্মমভাবে আহত করে এবং সাংবাদিকদের ক্যামেরা  ও ল্যাপটপ লুট করা হয়।

ঘটনায় আহত সাংবাদিক তৌফিকুল ইসলাম লিপু বাদি হয়ে গত রোববার রাতে ১৯ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন। দ্রুত বিচার আইনে রেকর্ড করা মামলায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভূক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী সন্ত্রাসী বাহিনী প্রধান নুরুল হক ভূট্টোকে প্রধান আসামি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*