চট্টগ্রামে ৪৭৯টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত

2016_05_20_18_44_37_RFFqrgnlBuvgdEF723car2ktmIvXA0_original স্টাফ করেসপন্ডেন্ট :
ঘূর্ণীঝড় রোয়ানু’র ক্ষয়ক্ষতি মোকাবেলায় চট্টগ্রামে ৪৭৯টি আশ্রয় কেন্দ্র খোলা রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোজবাহ উদ্দিন। একই সাথে ঘূর্ণীঝড় পরবর্তী বৃষ্টিপাতের কারণে পাহাড় ধস ঠেকাতে ইতোমধ্যে মাইকিং শুরু করেছে জেলা প্রশাসন।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির জরুরী সভায় এ তথ্য জানান তিনি।

তিনি আরো জানান, উপকূলীয় এলাকায় লোকজনকে সরিয়ে নিতে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। এছাড়া নগরীর পতেঙ্গা কাট্টলীসহ পাহাড়ি এলাকায়ও মাইকিং করা হচ্ছে বলে জানান জেলা প্রশাসক। জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে খোলা কন্ট্রোলরুম সার্বক্ষনিক খোলা রয়েছে।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার আগাম প্রস্তুতি হিসেবে পরবর্তী আদেশ না আসা পর্যন্ত চট্টগ্রামের সকল সরকারি ও আধাসরকারি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারিদের সবরকমের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন সম্মেলন কক্ষে জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির এক জরুরি সভায় এ তথ্য জানানো হয়।

জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ জানান, ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় নেয়া হয়েছে সম্ভাব্য সবধরনের প্রস্তুতি। এর অংশ হিসেবে প্রস্তুত রাখা হয়েছে উপজেলার সকল স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও আশ্রয় কেন্দ্রগুলো। ইতোমধ্যে উপজেলা পর্যায়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জেলা পর্যায়ে একটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলার পাশাপাশি সকল উপজেলায় খোলা হয়েছে কন্ট্রোলরুম। জেলা কন্ট্রোলরুমের নম্বর হচ্ছে ৬১১৫৪৫। 2016_05_20_19_24_47_VsdjxhIeR8M86gzp55tjlr1DXvDgiR_original

উপকূলীয় এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে, বাংলাদেশ বেতারে সতর্কতা সংকেত বারবার ঘোষণা করা হচ্ছে। সরকারি-বেসরকারিভাবে স্বেচ্ছাসেবকরা ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী উদ্ধার কাজের জন্য ইতোমধ্যে চট্টগ্রামের উপকূলীয় উপজেলাগুলোতে অবস্থান করছে। জেলা প্রশাসনের ভাণ্ডারে পর্যাপ্ত ত্রান মজুদ রয়েছে এছাড়া উপজেলা শুকনো খাবার প্রেরণ করা হচ্ছে বলে জানান ডিসি।

সভায় অংশ নিয়ে নিজেদের সব ধরনের প্রস্তুতি কথা জানান ফায়ার সার্ভিস, আনসার ভিডিপি, রেড ক্রিসেন্ট, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, বিদ্যুৎ, পরিবেশ অধিদপ্তর, মৎস্য অধিদপ্তরসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরাও।

এদিকে জেলার উপকূলবর্তী উপজেলা সমূহে জেলা প্রশাসন ও  নগরীর উপকূলবর্তী ওয়ার্ড সমূহে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে জনসাধারণকে সচেতন করতে মাইকিং শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্লিষ্ট সূত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*