পেকুয়ায় আ’লীগের জরুরী সভা অনুষ্টিত

ligপ্রেস বিজ্ঞপ্তি :
পেকুয়ায় আওয়ামীলীগের এক জরুরী সভা অনুষ্টিত হয়েছে। ৩১ মার্চ ইউপি নির্বাচনে ভোট গ্রহনের দিন বিপদগামী বিজিবি, পুলিশ, র‌্যাব কর্তৃক উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কাসেমসহ ক্ষমতাসীন দলের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে নির্দয় পিটিয়ে ও গুলি করে গুরতর আহত করে। ওই ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি নিশ্চিতসহ পরবর্তী পরিস্থিতি মুল্যায়নের জন্য উপজেলা আ’লীগ এ জরুরী সভায় মিলিত হয়েছেন। গতকাল ২৬ এপ্রিল মঙ্গলবার বিকেলে পেকুয়া বাজারস্থ দলীয় প্রধান কার্যালয়ে এ জরুরী সভা অনুষ্টিত হয়েছে। উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাষ্টার আজমগীর চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক আবুল কাসেমের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি শাহনেওয়াজ চৌং বিটু, দেলোয়র হোসেন, ফরিদুল আলম, সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, মোস্তাক আহমদ, যুগ্ন সম্পাদক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সিকদার বাবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফিজুর রহমান, ছৈয়দুল হক, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি জিএম কাসেম, মহিলা আ’লীগ নেত্রী উম্মে কুলসুম মিনু, আ’লীগ নেতা কাজিউল ইনসান, সদর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আযম খান, সম্পাদক বেলাল উদ্দিন, টইটং ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারন সম্পাদক চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, বারবাকিয়ার সভাপতি আবুল হোসেন শামা, সম্পাদক কামাল হোসেন, উজানটিয়ার সভাপতি তোফাজ্জল করিম, শিলখালীর সম্পাদক বেলাল উদ্দিন, মগনামার সাধারন সম্পাদক রশিদ আহমদ, রাজাখালীর সম্পাদক আবুল কাসেম আযাদ, উজানটিয়ার সাংগঠনিক সম্পাদক নাছির উদ্দিন, যুবলীগ সম্পাদক মো.বারেক, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি ওসমান গনি মেম্বার, সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, ছাত্রলীগ সভাপতি কফিল উদ্দিন বাহাদুর ও ছাত্রলীগ নেতা নাছির উদ্দিন প্রমুখ। এ সময় বক্তরা বলেছেন আ’লীগ সাধারন সম্পাদক কাসেমসহ নেতৃবৃন্দদের বিএনপি জামাতের ইশারায় বিপদগামী প্রশাসনিক কর্মকর্তারা এ ন্যাক্কার জনক ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা অনেক ধর্য্য ধরেছি। সরকারী দলের লোকজন বলে আন্দোলন সংগ্রাম থেকে বিরত রয়েছি। তবে সরকারের নীতি নির্ধারনী পর্যায়ে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। পরবর্তী পরিস্থিতি মুল্যায়ন করা হচ্ছে। এখনো পেকুয়ার প্রশাসন আ’লীগকে নিশ্চি‎হ্ন করার চক্রান্ত করছে। আমরা দ্রুত সিদ্ধান্তের দিকে যাচ্ছি। প্রয়োজনে দাবি বাস্তবায়নের জন্য কঠোর কর্মসুচী দেবে পেকুয়ায় আ’লীগ। বক্তরা নিন্দা জানিয়ে বলেছেন বেড়িবাধ সংস্কারে বিএনপির সভাপতি চেয়ারম্যান বাহাদুর শাহ এর সাথে সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী এড.কামাল হোসেন ফটো সেশনে মিলিত হয়েছে। বেড়িবাধ করছে সরকার। অথচ বিএনপি প্রচার করছে তাদের নেতার অর্থায়নে বেড়িবাধ সংস্কার হচ্ছে। আমরা ওই অপপ্রচার ও ফটোসেশনে মর্মাহত হয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*