চকরিয়ায় ধানের শীষের প্রচারণায় বাঁধা, ঘরে ঘরে পুলিশী হানা

chakaria-bnp-13-3-16চকরিয়া রিপোর্টার :
চকরিয়া পৌরসভার নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই সাধারণ ভোটারদের মাঝে সুষ্টু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে শংকা বেড়েই চলছে। আর শঙ্কা করতে না করতেই শুরু হয়েছে বিএনপি তথা ২০ দলীয় প্রার্থীর ধানের শীষ প্রতীকের সমর্থনে প্রচারণায় বাধা, কর্মীর উপর হামলা ও বিএনপির নেতাকর্মীর বাড়িতে পুলিশী হানা ও হয়রানী।

রবিবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এমনই অভিযোগ করেন ধানের শীষ প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচন পর্যবেক্ষন কমিটি ও উপজেলা বিএনপি।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তপশীল অনুযায়ি আগামী ২০ মার্চ চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচন। মধ্যে আর মাত্র ৬দিন বাকী। নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন কেবল দুই মেয়র প্রার্থী যথাক্রমে বিএনপির প্রার্থী আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম হায়দার (ধানের শীষ) ও আওয়ামীলীগের মেয়র প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী (নৌকা) এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ২০জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৯জন। গতকাল রবিবার বিকেল ২টায় চকরিয়া উপজেলা বিএনপি ও ধানের শীষের পক্ষে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি জরুরী সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করেন।

এসময় অভিযোগ করেন, শনিবার দিবাগত রাতে পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি কাউন্সিলর নাজেম উদ্দিনের বাড়িতে হানা দিয়েছে পুলিশ, একই রাতে ৯নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান বাবুল চৌধুরী ও একই ওয়ার্ড বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি কাউন্সিলর প্রার্থী মো: সেলিম উদ্দিনের বাড়িতে হানা দেয় পুলিশ। বিএনপি নেতা আবদুর রহমান বাবুলের বাড়ির দরজা পুলিশ ভেঙ্গে দিয়েছে বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

এদিকে রবিবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে বিএনপির ধানের শীষের প্রার্থী আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম হায়দারের সহধর্মীনী রিফাত সাবরিনা কর্মী-সমর্থকদের সাথে নিয়ে ৫নং ওয়ার্ডের কাহারিয়াঘোনা এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। ওইসময় আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলমগীর চৌধুরৗ অতর্কিতভাবে এসে তাকে গালি-গালাজ করে প্রচারকাজে বাধা দেয়। এমনকি আলমগীর চৌধুরী নিজেই ধানের শীষ প্রার্থীর স্ত্রী রিফাত সাবরিনা ও তার সহযোগি বিউটিকে শারীরীকভাবে লাঞ্ছিত করে বলে অভিযোগ করা হয়। রিফাত সাবরিনা ও বিউটির হাতে থাকা ধানের শীষ প্রতীকটি নিয়ে ছুড়ে ফেলে দেন নৌকার প্রাথী আলমগীর। চকরিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মিজানুর রহমান চৌধুরী খোকন মিয়া সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, মেয়র প্রার্থী (বর্তমান মেয়র) আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম হায়দার, কক্সবাজার জেলা বিএনপির সহসভাপতি আলহাজ্ব এনামুল হক, পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম আবুল হাসেম, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এম মোবারক আলী, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল আবছার, পৌর বিএনপির যুব বিষয়ক সম্পাদক এ এম আলী আকবর, জেলা যুবদলের সহসভাপতি আকতার ফারুক খোকন, পৌর যুবদলের আহবায়ক মাহমুদুল করিম, জেলা যুবদলের সদস্য জসিমউদ্দিন।

এসময় উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব মিজানুর রহমান চৌধুরী খোকন মিয়া আরও বলেন, ‘আমরা নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ঘোষিত নির্বাচন আচরণ বিধি মেনেই প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছি, কিন্তু সরকারি দল সমর্থিত প্রার্থী নির্বাচন আচরণ বিধি লঙ্গন করছেন, রাত ১২ টা পর্যন্ত মোটর সাইকেল শোভাযাত্রার মাধ্যমে প্রচারণা চালাচ্ছেন। প্রশাসনের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, যারা দায়িত্বশীল কর্তা রয়েছেন তারাও আমাদের ভাই ও বন্ধু। সুষ্টু, সুন্দর, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন যাতে হয় সে-জন্য নিরপেক্ষ ভূমিকা রাখবেন বলে আশা করি’। এসময় ধানের শীষ সমর্থিত লোকজনকে অহেতুক হয়রানী না করে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন বিএনপির খোকন মিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*