খুটাখালীতে মহিলাসহ ৩ জনকে কুপিয়ে জখম

jokomবার্তা পরিবেশক :
চকরিয়া খুটাখালীতে সীমানার বিরোধ নিয়ে মহিলাসহ একই পরিবারের ৩ জনকে কুপিয়ে জখম করেছে নিজের ভাই ও ভাতিজারা। নিজের সীমানা দখল করে নেওয়ার বিষয়টি বাঁধা দিতে গেলে অসহায় পরিবারের উপর এই উপর্যুপরি হামলা চালানো হয়েছে। বর্তমানে আশংকাজনক অবস্থায় তাদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে খুটাখালী ৫নং ওয়ার্ডের হাফেজখানা রোড়ের উত্তর পাশে মাইজ পাড়া এলাকায় এঘটনা ঘটে।  আহতরা হলেন- মাইজ পাড়া এলাকার মৃত ছাবের আহমদের ছেলে নুরুল আমিন (৪০), তার স্ত্রী রোকসানা আক্তার (২৮) ও প্রবাসী শাহ আলমের স্ত্রী রবি আক্তার (২২)। আহতদের সূত্রে জানা গেছে, সকালে শাহ আলমের সীমানার মধ্যে তার চাচাতো ভাই হুমায়ুন স্থায়ীভাবে কাজ করছে। এতে শাহ আলমের স্ত্রী রুবি আক্তার কাজ না করতে বাঁধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে হাতে থাকা ধারালো দা দিয়ে রুবিকে জোরে কুপ দেয় হুমায়ুন। তখন রুবির শোর চিৎকারে নুরুল আলম ও রোকসানা এগিয়ে আসলে তাদের উপর হামলা চালানো হয়। এমনকি হুমায়ুন কবিরের বাবা নুরুল কবির, তার ছেলে জাহাঙ্গীর কবির ও নুরুল কবিরের স্ত্রী মরিয়ম বেগম একযোগে এসে ধারালো দা দিয়ে তাদের কুপাতে থাকে। আহত নুরুল আলম জানান, ঘটনা মিমাংস করতে গেলেই তাকে ধারালো দা দিয়ে তার ভাই নুরুল কবির, ছেলে হুমায়ন ও জাহাঙ্গীর এলোপাতাড়ি কুপাতে থাকে। তার হাতে, মাথায়, পিটে ও গলায় কুপানো হয়েছে। এছাড়া অসহায় মহিলাদেরও কুপিয়ে জখম করেছে তারা।
তৈয়ব তাহের নামে আহতদের এক নিকট আত্মীয় জানান, ঘটনার পর পরেই আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। কিন্তুু আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেছে। বর্তমানে নুরুল আলম আংশকাজনক রয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে। এ ঘটনায় আহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের প্রস্তুুতি নিচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*