আনোয়ারা সদরের মূল সড়কের বেহাল অবস্থা, ঘটছে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা, কর্তৃপক্ষ নীরব

 

 

এম এইছ ইমরান চৌধুরী, আনোয়ারা ::

দক্ষিণ চট্টগ্রামে আনোয়ারার প্রধান সড়কটি যেনো মৃত্যুর ফাঁদ। যানবাহন ও পথচারীদের চলাচলে দুর্ভোগের শেষ নেই । ঘটছে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা। আজ ২৪ আগস্ট সকাল সাড়ে ৮ টায় চট্টগ্রাম থেকে আসা বরকলগামী ভারী মালবোঝাই একটি ট্রাক আনোয়ারা থানা ও আনোয়ারা সরকারি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের স¤মুখে রাস্তার খানাখন্দকে পড়ে আটকে যায়। এতে দীর্ঘ সময় ধরে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায় ।

জানা যায়, সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে চট্টগ্রাম থেকে আসা বরকলগামী ভারী মালবোঝাই একটি ট্রাক আনোয়ারা থানা ও আনোয়ারা সরকারি আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের স¤মুখে খাদে পড়ে আটকে যায়। এতে দীর্ঘ সময় ধরে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ফলে যানবাহন ও পথচারীরা চরম দুর্ভোগে পরেন। পরে পুলিশের ক্রেন আসলে সেটি দিয়ে ট্রাকটি টেনে তোলা হলে পুনরায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

সরেজমিনে দেখা যায়, আনোয়ারা সদরের জয়কালী বাজার থেকে শুরু করে কালা বিবির দীঘি পর্যন্ত এ সড়কটিতে হাজারো ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সড়কটির ইট, বালি, কংক্রিট উধাও হয়ে দীর্র্ঘদিন ধরে পানি জমে থেকে সড়কচিহ্ন হারিয়ে পুকুরের আকার ধারণ করে চলাচলের যোগ্যতা হারিয়েছে। এছাড়াও গর্তে পড়ে গাড়ি উল্টে যাওয়া, অন্তঃসত্ত্বা, প্রসব বেদনায় কাতর, সিজার, ডেলিভারিসহ হাসপাতালে রোগীদের যাওয়া-আসার মধ্যে কষ্টের যেনো শেষ নেই। সড়কটি দিয়ে চন্দনাইশ ও আনোয়ারা এই দুই উপজেলার হাজারো মানুষ চলাচল করেন বাধ্য হয়ে। উপজেলা সদরের সড়কটি এভাবে দীর্ঘদিন থেকে পড়ে থাকলেও সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না।

আনোয়ারা সদরের স্থানীয় কিছু ব্যবসায়ী ও পথচারীরা জানান, সরকার এত উন্নয়ন করছে কিন্তু দক্ষিণ চট্টগ্রামের আনোয়ারা সদরের এ সড়কটিতে নজর দিলে আদৌ উন্নয়ন হচ্ছে এই কথা কেউ বলবে না। সস্তা উপকরণ দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করায় প্রতিনিয়ত আমাদের এই ধরনের নানা দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। রাস্তা ভেঙ্গে যাচ্ছে বারবার । একশ্রেণীর মানুষ উন্নয়নের নামে সব লুটেপুটে খাচ্ছে। বর্ষায় হয়তো সড়কের বেহাল অবস্থা চোখে পড়ছে। শুষ্ক সময়ে ভালমানের উপকরণ দিয়ে সড়ক নির্মাণ করলে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হতো না।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*